সৌদি আরবের মুসলমানদের পবিত্র ধর্মস্থান মক্কা আসলে হিন্দুদের মন্দির এমন দাবি করছেন এক ভারতীয় হিন্দু। সেখানে নাকি মক্কেশ্বর মহাদেব মন্দির ছিল। এমন মন্তব্য করেছেন হিন্দু মহাসভা সংগঠনের জাতীয় সম্পাদক পূজা শকুন পাণ্ডে। ইতিমধ্যেই মক্কার ছবি দিয়ে নিজেদের একটি ক্যালেন্ডারও তৈরি করে ফেলেছে সংগঠনটি।

তিনি দাবি করেন, মক্কার ছবির উপরে লেখা হয়েছে মক্কেশ্বর মহাদেব মন্দির।

এছাড়াও ক্যালেন্ডারে আরও একাধিক বিতর্কিত কথা লেখা হয়েছে।

সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে, মধ্যপ্রদেশের কমল মৌলা মসজিদ নাকি হিন্দু মন্দিরের ভোগশালা ছিল। কাশীর জ্ঞানব্যাপী মসজিদও আসলে কাশী বিশ্বনাথ মন্দিরের অংশ। কুতুব মিনার ছিল বিষ্ণু স্তম্ভ, জুনপুরের অটলা মসজিদটি অটলাদেবীর মন্দির। আর বাবরি মসজিদ হলো রামমন্দির।

সংগঠনের জাতীয় সম্পাদক পূজা শকুন পাণ্ডে জানান, ভারতকে হিন্দু রাষ্ট্র গড়ে তোলার লক্ষ্যে নতুন বছরের যজ্ঞের আয়োজন করা হচ্ছে। সেই লক্ষ্যে যাতে কোনও বাধা না আসে সেজন্যই এই মহাযজ্ঞের আয়োজন।

ক্যালেন্ডারে দেওয়া যাবতীয় তথ্য নাকি ইতিহাসবিদ বিপি সাক্সেনার যাচাই করা। তিনি আলিগড়ের বর্ষেণী কলেজের প্রাক্তন অধ্যাপক।

এদিকে হিন্দু মহাসভার এই ক্যালেন্ডার প্রকাশের তীব্র নিন্দা করেছেন ইমাম-এ-ঈদগাহের মাওলানা, অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল-বোর্ডের সদস্য খালিদ রশিদ ফিরঙ্গি মহলি।

Comments

comments

SHARE